Subscribe Us

header ads

সমস্ত জমিজমা মসজিদে দান করা ও নিজস্ব জমির উপর কওমি মাদ্রাসা নির্মাণ করার বিধান।

ওয়ারিশদের মধ্য হতে যদি শুধু ভাইয়ের সন্তান ও বোনের সন্তান থাকে তাহলে সমস্ত সম্পদ মসজিদে ওয়াক্বফ করার বিধান


প্রশ্ন: আমার প্রতিবেশী চাচা জনাব মুহসিন আলী অবিবাহিত। তাঁর ওয়ারিশদের মধ্য হতে শুধু তাঁর ভাইয়ের সন্তান ও বোনের সন্তান আছে। এমতবস্তায় জনাব মুসসিন সাহেব তাঁর সম্পদ ওয়ারিশদের না দিয়ে সমস্ত সম্পদ মসজিদে ওয়াক্বফ করতে পারবে কিনা?

সমাধান: প্রশ্নের বর্ণনানুযায়ী জনাব মুহসিন সাহেব তাঁর সমুদয় সম্পদের মালিক। তাঁর জীবন্দশায় সে তাঁর সম্পদ তাঁর ইচ্ছা মত খরচ করতে পারবে। সুতরাং যদি তিনি সুস্থবস্থায় তাঁর সমুদয় সম্পত্তি মসজিদের নামে ওয়াক্বফ করে দিয়ে নিজেই তা ব্যবহার থেকে বিরত থাকে তাহলে উক্ত ওয়াক্বফ সঠিক ও কার্যকর হয়ে যাবে। এবং উক্ত সম্পদের মধ্যে ভাইয়ের সন্তানাদী বা অন্যদের কোন হক্ব থাকবে না। আর যদি তিনি এভাবে ওয়াক্বফ না করে ওয়াক্বফের ওসিয়ত করে বলেন যে, আমি আমার জীবন্দশায় আমার সম্পদ ভোগ করব আর আমার মৃত্যুর পরে আমার সমুদয় সম্পত্তি মসজিদের নামে হয়ে যাবে। তাহলে তাঁর মৃত্যুর পরে উক্ত ওসিয়তের এক তৃতীয়াংশ সম্পদ মসজিদের নামে কার্যকর হবে আর বাকী সম্পত্তি তাঁর ওয়ারিশদের মাঝে বন্টন করে দেওয়া হবে। তবে উক্ত মাসআলায় তাঁর ওয়ারিশ হবে শুধুমাত্র তাঁর ভাইয়ের সন্তানেরা, বোনের সন্তানেরা কোন সম্পত্তি পাবে না। কেননা মামার সম্পত্তি ভাগিনা ভাগিনীরা পায় না।   

প্রদত্ত সমাধানের দলীল সমূহ

والمالك هو المتصرف في الأعيان المملوكة كيف يشاء من الملك(تفسير البيضاوى، 1\56  دار الفكر – بيروت. 1\6-7 مصدر الكتاب : موقع التفاسير)

فيبدأ بذوي الفروض ثم بالعصبات النسبية ....... ثم ذوي الأرحام) أي يبدأ بهم عند عدم ذوي الفروض النسبية والعصبات (رد المحتار على الدر المختار، كتاب الفرائض 6\762 دار الفكر-بيروت. 10\498 ، 10\501 زكريا)

متى صح الوقف بأن قال: جعلت أرضي هذه صدقة موقوفة مؤبدة .... فإنه يصح حتى لا يملك بيعه ولا يورث عنه (الفتاوى الهندية، كتاب الوقف،الباب الأول في تعريف الوقف وركنه وسببه وحكمه وشرائطه، 2\352 دار الفكر)

إذا صح الوقف يزول ملك الواقف لا إلى مالك فيلزم ولا يملك اهـ (تبيين الحقائق شرح كنز الدقائق وحاشية الشِّلْبِيِّ ، كتاب الوقف 3\325 المطبعة الكبرى الأميرية - بولاق، القاهرة. فتح القدير 14\64 موقع الإسلام)

اذا صح الوقف لم يجز بيعه ولا تمليكه (الهداية، كتاب الوقف 2\640 إدارة المعارف ديوبند، 2\619 مكتبة بلال ديوبند)

وأما ثالثا فلأنه جعل من شرائطها أن يكون الموصى به مقدار الثلث لا زائدا عليه، وهو ليس بسديد على إطلاقه فإن الموصي إذا ترك ورثة فإنما لا تصح وصيته بما زاد على الثلث إن لم تجز الورثة، وإن أجازوه صحت وصيته به، وأما إذا لم يترك وارثا فتصح وصيته بما زاد على الثلث حتى بجميع ماله عندنا (البحر الرائق شرح كنز الدقائق، كتاب الوصايا 8\460 دار الكتاب الإسلامي. 8\403 کوئٹہ. فتح القدير 24\201 موقع الإسلام)

كتاب النوازل 13\47)


নিজস্ব জমির ওপর কওমি মাদ্রাসা নির্মাণ করার বিধান     

প্রশ্ন: একজন সম্মানিত আলেম তার নিজের টাকা দিয়ে জমি ক্রয় করেন এবং জনসাধারণের কাছ থেকে চাঁদা আদায় করে উক্ত জমিনের উপর মাদ্রাসা নির্মাণ করেন। এবং এক বছরের মধ্যেই মাদ্রাসার অনেক উন্নতি হয় এবং লেখা-পড়াও ভাল চলতে থাকে। কিন্তু উক্ত জমিনটি ঐ আলেমের নামে, মাদ্রাসার নামে ওয়াক্বফ করা হয়নি কারণ মাদ্রাসার নামে ওয়াক্বফ করলে সেখানে তৃতীয় ব্যক্তিবর্গ হস্তক্ষেপ করবে, দখলদারিত্ব চালাবে এবং বিভিন্ন কাজে বাধা দান করবে তাই তিনি উক্ত জমিন নিজের টাকায় ক্রয় করে নিজের নামে রেজিষ্টেশন করেন। এই কাজটি উক্ত আলেমের করা ঠিক হয়েছে কিনা? এবং উক্ত মাদ্রাসাটি জনগণের টাকায় নির্মাণ করা বৈধ হয়েছে কিনা? যদি আলেম সাহেব কে মাদ্রাসার জমিন ওয়াক্বফ করার জন্য বলা হয়, তিনি বলেন দুনিয়াতে অনেক এমন মাদ্রাসা আছে যার জমি ওয়াক্বফ করা হয়নি এবং বলেন মাদ্রাসার জমি ওয়াক্বফ করা জরুরি না তবে সাধারন জনগন বলেন উক্ত মাদ্রাসাটি ভালো চলে এবং পড়াশোনাতে অনেক উন্নত।
 
সমাধান: নিজস্ব জমিনের উপর জনগণের সাহায্য সহযোগিতা নিয়ে মাদ্রাসা নির্মাণ করা এবং চালানোর মধ্যে শরীয়তে কোন নিষেধাজ্ঞা নেই তবে তার ব্যবস্থাপনা এমন হওয়া জরুরী যে, পরবর্তীতে যেন আলেমের ওয়ারিশগন মাদ্রাসার বিল্ডিং এবং আসবাবপত্রের মধ্যে মালিকানা দাবি না করতে পারে।

প্রদত্ত সমাধানের দলীল সমূহ

قال ( ومن بنى سقاية للمسلمين أو خانا يسكنه بنو السبيل أو رباطا أو جعل أرضه مقبرة لم يزل ملكه عن ذلك حتى يحكم به الحاكم عند أبي حنيفة ) ؛ لأنه لم ينقطع عن حق العبد ؛ ألا ترى أن له أن ينتفع به فيسكن في الخان وينزل في الرباط ويشرب من السقاية ، ويدفن في المقبرة فيشترط حكم الحاكم أو الإضافة إلى ما بعد الموت كما في الوقف على الفقراء ، بخلاف المسجد ؛ لأنه لم يبق له حق الانتفاع به فخلص لله تعالى من غير حكم الحاكم (فتح القدير،كتاب الوقف، فصل: إذا بنى مسجدا إلخ، 14\150 موقع الإسلام. 6\ 221 زكريا)

كذا في الفتاوى التاتارخانية 8\183 الرقم: 11582 زكريا)
كتاب النوازل 13\48)


والله سبحانه وتعالى أعلم

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য